ফ্লাটারের নাড়িভুঁড়ি — কন্টেইনার এবং টেক্সট উইজেট

সোমবার, ৩ মে ২০২১, দুপুর ২:৫৪ সময়

ফ্লাটার কন্টেইনার এবং টেক্সট

#contest_season_1

কন্টেইনার উইজেটঃ

আপনার জানেন যে ফ্লাটারে সবকিছুই একেকটা উইজেট। যেমন আপনি যদি এপ্লিকেশনে একটি ছবি বা কোন লেখা দেখাতে চান তাহলেও আপনাকে উইজেট ব্যবহার করতে হবে। এখানে ছবি এবং লেখা হলো উইজেট। এখন আমরা কন্টেইনার এবং টেক্সট উইজেট নিয়ে টুকিটাকি আলোচনা করবো।

কন্টেইনার এবং টেক্সট উইজেট ফ্লাটারে সবচেয়ে পাওয়ারফুল উইজেট। আমি মাঝেমধ্যে দেখি অনেকেই তাদের কোডের সাইজ অযথাই বাড়িয়ে ফেলে। অথচ আমরা যদি কন্টেইনার এর ফুল ফাংশনালিটি ব্যবহার করি তাহলে অতি সুন্দর এবং কম কোড লিখে দারুন একটি আউটপুট পাওয়া সম্ভব। কি দরকার এতো সময় অযথা বাড়তি কোড করে সময় লস করার। এই সময়টুকু প্রেমিকার পিছনে দিলে সম্পর্ক ঠিক থাকবে।

Techdiary: article-image

আউটপুটঃ

Techdiary: Flutter Container
Flutter Container

কন্টেইনার হলো একটি স্যুটকেসের মতো। স্যুটকেসে আমরা আমাদের বিভিন্ন দরকারি জিনিস রেখে তা বন্ধ করে দিতে পারি। কন্টেইনার এমন ই। উপরে দেওয়া বাক্সটি একটি কন্টেইনার। এখানে কন্টেইনার কালার হিসেবে সবুজ দেওয়া হয়েছে। কন্টেইনারের উচ্চতা আছে ১৫০ এবং প্রস্থ আছে ১৫০। কন্টেইনার উইজেটের বিভিন্ন প্রোপার্টি আছে। তাদের মধ্যে বর্ডার রেডিয়াস অন্যতম। এটা দিয়ে আপনি কন্টেইনারের চারিদিকে বিভিন্ন আকৃতি দিতে পারবেন। যেমন এখানে বর্ডার রেডিয়াস সার্কুলার দিয়ে চার পাশে একটু রাউন্ড টাইপ করা হয়েছে। আপনারা যদি চান তাহলে কন্টেইনারকে ডেকোরেট করতে পারবেন। আমরা জন্মদিনের কেক যেভাবে সুন্দর করে সাজাই তেমন। সেক্ষেত্রে আপনাকে decoration: প্যারামিটার ব্যবহার করতে হবে। আরেকটা বিষয় মনে রাখতে হবে, কন্টেইনার এ যদি কালার সেট করেন তাহলে decoration এ কালার দেওয়ার দরকার নেই। এক সাথে দুই যায়গায় কালার সেট করলে ইরর ছুড়ে মারবে। আপনারা বিভিন্ন প্রোপার্টি এক্সপ্লোর করতে পারেন।

টেক্সট উইজেটঃ

Techdiary: article-image

আউটপুটঃ

Techdiary: article-image

ফ্লাটারে অন্যতম একটি পাওয়ারফুল উইজেট হলো টেক্সট উইজেট। আমরা এপ্লিকেশনের মাঝে প্রচুর টেক্সট উইজেট ব্যবহার করি। এখানে আগে বানানো উইজেটের মধ্যে I Love You লেখাটা আমরা টেক্সট উইজেটের মাধ্যমে দেখিয়েছি। টেক্সট উইজেটের বিভিন্ন প্যারামিটার আছে যার মাধ্যমে আপনারা টেক্সটকে আরও সুন্দরভাবে সাজাতে পারবেন। তার মধ্যে style: অন্যতম। এটা ব্যবহার করে ফন্ট চেঞ্জ করতে পারবেন, টেক্সট এর কালার চেঞ্জ করতে পারবেন সাথে আরও অনেক ফিচার আছে। আপনারা ফ্রি সময়ে সবগুলো এক্সপ্লোর করবেন আশা করি।

Facebook — Link

Github — LInk

Twitter — Link

LInkedIn — LInk